রাউজানে মোজাম্মেল হকের হামলার প্রতিবাদে দিনভর উত্তাল ছিল রাজপথ, বিক্ষোভ মিছিল-সড়ক অবরোধ। 

1737
অামির হামজা (রাউজান নিউজ)♦ রাউজানে মোজাম্মেল হকের হামলার প্রতিবাদে দিনভর  উত্তাল ছিল রাজপথ, বিক্ষোভ মিছিল-সড়ক অবরোধ। চট্টগ্রামের রাউজানে গত বৃহস্পতিবার অা’লীগ নেতা হত্যার প্রতিবাদে দিনভর উত্তাল ছিল রাউজানের রাজপথ, কোনো সময় রাজপথে বিক্ষোভ মিছিল, অাবার কোনো সময়ে দেখাযায় সড়ক অবরোধ করে রাস্তায় অাগুন জ্বালিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারণ নেতাকর্মীরা। এই ঘটনায় রাউজানের উত্তর-দক্ষিণ দুই মহাসড়কে চলে তীব্র আন্দোলন, এসময় দুই সড়ক প্রায় ছয়ঘন্টা অবরোধ করে রাখা হয়। অবরোধের কারণে ঐ সময় সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সড়ক অবরোধের প্রভাবে যানচলা বন্ধ হলে সাধারণ যাত্রীর গন্তব্য পৌঁছাতে কিছূটা সমস্যা সৃষ্টি হয়।

এসময় রাস্তায় আন্দোলনকারী বলেন, শান্তির ধর্ম ইসলামে সন্ত্রাসবাদের কোনো স্থান নেই, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ কোনো ধর্ম ও দেশ নয়। কোরআনের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড সংগঠিত করা হচ্ছে, রাউজানে ভন্ডপীরের আস্তানা জ্বালিয়ে দাও পুড়িয়ে দাও সহ নানা শ্লোগানে-শ্লোগানে জাগ্রত হয়ে ওঠে সমগ্র রাউজান, এসময় প্রতিটি ইউনিয়নে থমথমে পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। যে যার মত করে প্রতিবাদ করতে থাকেন বিভিন্ন শ্রেণী-প্রেশার মানুষরা। এসময় সাধারণ মানুষ ও দলীয় নেতাকর্মীরা তাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে মুনিরীয়া যুব তবলীগে বিভিন্ন স্থানে কার্যালয় ভাঙচুর, সাঁটানো ব্যানার, বড় বড় বিলবোর্ডসহ অপসারণ করেন।

জানাগেছে, গত বুধবার (১৭-এপ্রিল) সন্ধ্যায় স্থানীয় হাট থেকে বাড়ি অাসার পথে রাউজান ইউনিয়ন অা’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাম্মেল হক এর যাওয়ার পথে
অাটকিয়ে রাউজানের মুনরিয়া যুব তবলীগের একদল সমর্থকরা তার ওপর হামল করে যা ছিল হত্যার উদ্দেশ্য একটি পরিকল্পিত সন্ত্রাসী হামলা। হামলাকারীরা মোজাম্মেল’কে দেশী অস্ত্রসহকারে ব্যাপক আঘাতকরে পালিয়ে যায়। এসময় ব্যাপক শব্দ হলে তাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে অাসেন মুক্তিযোদ্ধা শফিউল আলম এসময় হামলাকারীরা তাকেও আঘাত করে বলে জানান। বর্তমানে গুরুত্বর অাহত মোজাম্মেল হক চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন হিরু জানান, ২০ থেকে ৩০ জন যুবক মোজাম্মেলের উপর হামলা চালায়। হামলাকারীরা সবাই মুনিরীয়া যুব তাবলীগ কমিটি কর্মী। তিনি বলেন হামলাকারীদের প্রত্যেকের হাতে লাটি ও দেশীয় অস্ত্র ছিল। যা দিয়ে মোজাম্মেল’কে ব্যাপক মারধর করেন তারা। তাকে উদ্ধার করতে অাসলে হামলাকারীরা মুক্তিযোদ্ধা শফিউল আলম’কে হামলা চালান।

এই সময় বিক্ষোভ মিছিলে বক্তব্য রাখেন আ’লীগের সহ সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, প্যানেল মেয়র বশির উদ্দিন খান, আ’লীগ নেতা জসিম উদ্দিন চৌধুরী, যুবলীগ নেতা ২য় প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ, ইউপি চেয়ারম্যান বিএম জসিম উদ্দিন হিরু, চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ, চেয়ারম্যান তসলিম উদ্দিন চৌধুরী, সাইফুল ইসলাম রানা, অাবু সালেকসহ হাজারও নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এসময় হামলাকারীদের গ্রেফফতার করতে প্রশাসনকে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দেন।

এবিষয়ে প্যানেল মেয়র ও যুবলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ বলেন, তাদের বার বার এসব সন্ত্রাসী কার্যক্রম বন্ধ করতে বলা হলেও, তারা এই শান্তির ও সুন্দর রাউজানে যে কোনো বিষয়ে সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করে একের পর এক হামলা চালিয়ে রাউজানে অরাজকতা সৃষ্টি করে তাকেন। কিন্তু এবার রাউজানের সাধারণ মানুষ ঘরে নেই তাদের ভন্ডামীর বিরোধে কথা বলতে প্রতিবাদ জানাতে সারা রাউজানে মানুষ অান্দোলনে নামিয়ে পড়েন। তিনি আরো বলেন, মুনিরিয়ার দলের একদল সন্ত্রাসী বাহনী আমাদের মোজাম্মেলকে হত্যার উদ্দেশ্যে নির্মমভাবে আঘাত করেছেন তাঁরা। এই সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ও তাদের নির্দেশদাতাকে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা না করলে আমরা অাগামীতে অারোও তীব্রতর আন্দোলন থেকে রাজপথ আন্দোলন
চালিয়ে যাব।

এবিষয়ে ঘটনার বরাত দিয়ে রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেপায়েত উল্লাহ বলেন, রাউজানে মুনরিয়া যুবতবলীগ কমিটির কিছূ লোকজন গত বুধবার সন্ধ্যায় আ’লীগ নেতা মোজাম্মল হক’কে গুরুত্বর আঘাত করেছে। তার প্রতিবাদে রাজনৈতিক সহকর্মীরা সড়ক আবরোধ ও বিক্ষোভ করছেন। আমরা সন্ত্রাসীদের ধরতে আভিযান চালি যাচ্ছি। দ্রুত সময়ে তাঁদের অাটক করে অাইনগ্রত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। এছাড়াও দুই জন কে অাটক করা হয়।

বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম হোসেন রেজা বিক্ষোভকারীদে আশ্বাস দিয়ে বলেন ধর্মীয় স্থানে যারা অাঘাত করেন ও ধর্মের নামে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে দেশে সমাজে কোনো অবস্থায় অামরা এস উগ্রবাদী’কে সংঘটনকে বরদাশত করবো না। প্রয়োজনে অাইনগত ব্যবস্থা নিয়ে তাদের সকল অপকর্ম আমরা ঘুড়িয় দিব, অার যদি এই হামলা ব্যক্তিগতভাবে করে থাকে তাহলেও এটার বিচার অামরা করবো। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে আন্দোলনকারী অবরোধ প্রত্যাহার করে নেন।

এদিকে (১৯-এপ্রিল) শুক্রবার সকাল থেকে উপজেলা অা’লীগের কার্য়ালের সামনে অবস্থানে ছিলেন দলীয় নেতাকর্মীরা। পাশাপাশি অাইন শৃঙ্খলার বাহনীর মোতায়েন অাছেন।

রাউজান নিউজ/অামির হামজা.বার্তা বিভাগ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here