রাউজানে মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে গেলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও ক্রীড়া সংগঠক গন

253

মীর অাসলাম (রাউজান নিউজ) ♦

রাউজানে মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে গেলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও ক্রীড়া সংগঠক গন।চট্টগ্রাম-৬ রাউজান আসনের মহাজোট প্রার্থী এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী ১১ ডিসেম্বর থেকে গতকাল পর্যন্ত উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ১৩০টি পথসভা ও গ্রামীণ জনপথে গণসংযোগ করে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়েছেন।

গত ২৬ ডিসেম্বর তিনি পথসভা ও গণসংযোগ করেন উপজেলার রাউজান সদর ইউনিয়নে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলমান পথসভায় ও গণসংযোগে এলাকার হাজার হাজার মানুষ যোগ দেন। এদিন তার প্রচারণায় যোগ দিয়ে নৌকার জন্য ভোট চান চট্টগ্রামের বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী সাংবাদিকসহ দেশে কয়েকজন ক্রীড়া সংগঠক।

তাদের মধ্যে ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি এম.আলী আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক শুক লাল দাশ, রতন কান্তি দেবাশীষ, সৈয়দ আলমগীর সবুজ, মঞ্জুর আলম, মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম ভূইঁয়া, আল রহমান, খোরশেদুল আলম শামীম, বাংলাদেশ তায়াকোয়ানডো ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সংগঠক সিরাজউদ্দিন আলমগীর, মাহমুদুল আলম মান্না, শ্যামল পালিত, এডভোকেট অপূর্ব ভট্টাচার্য, এডভোটকেট দীপক দত্ত, চেয়ারম্যান সৈয়দ আবদুর জব্বার সোহেল, সুমন দে, মোহাম্মদ রাশেদ প্রমূখ।

প্রচারণায় আসা বিশিষ্ট ব্যক্তিরা বলেন বঙ্গবন্ধু এই দেশ গড়ার কাজে সারা দেশে সোনার মানুষ চেয়েছিলেন। তিনি বেঁচে থাকলে এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীকেই একজন সোনার মানুষ হিসাবে বুকে টেনে নিতেন। তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাও রাউজানের এই বীর সন্তানকে সোনার মানুষ হিসাবে গ্রহন করতে ভুল করেননি। এর প্রমান মাননীয় প্রধান মন্ত্রী তিন বার এই বীর সন্তানের হাতে কৃষি ও বৃক্ষ রোপনের জন্য শ্রেষ্ঠত্বের পুরুষ্কার প্রদান করেছেন। তাকে প্রতিবার নির্বাচনে নৌকার যোগ্য প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন দিচ্ছেন। বক্তারা বলেন রাউজানের মানুষের উৎসাহ উদ্দীপনায় আশা করা যায়. এই নির্বাচনে নৌকার বিজয় হবে আকাশচুম্বি ভোটে। রেকর্ড হবে দেশের মধ্যে সর্বাধিক ভোটের ব্যবধানের।

প্রার্থী ফজলে করিম চৌধুরী তার বক্তব্যে বলেন রাউজানের নারী পুরুষ যারা ভোটার তাদেরকে ৩০ ডিসেম্বর ভোট কেন্দ্রে গিয়ে নিজ নিজ ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে হবে। চুড়ান্ত ফলাফল নিয়ে সবার আগে বিজয় উৎসব করার প্রস্তুতিতে থাকতে হবে। রাউজানে গত ১০ বছরে ২৭ হাজার কোটি টাকার উন্নয় কাজ করার কথা স্বরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন আওয়ামীলীগ সরকার আবার ক্ষমতা আসলে অসমাপ্ত সকল কাজ সম্পর্ণ করা হবে। রাউজানের কোনো মানুষ বেকার থাকবে না। সবার জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা হবে। এদিন সকাল নয়টায় ইউনিয়নের প্রথম পথসভায় হরিষখান পাড়ায় ফুলের নৌকা সাজিয়ে মহাজোট প্রার্থীকে অভ্যর্থনা জানায় আওয়ামীলীগ নেতা সৈয়দ হোসেন কোম্পনী ও যুবলীগ নেতা আজিজ উদ্দিন ইমু। এখানে পথসভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিএম জসিম উদ্দিন হিরু ও অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ইমরান হোসেন ইমু। এরপর মহাজোট প্রার্থী রশিদা পাড়া এলাকায় পথ সভায় বক্তব্য রাখেন। এখানে সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদুর নবী, সেখান থেকে তিনি চলে যান কেউটিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে। এরপর যোগ দেন রাউজান বড়–য়াপাড়া, মোহাম্মদপুর, রমজান আলী হাট সংলগ্ন মাঠ ও মঙ্গলখালীসহ আরো কয় একটি পথ সভায়।

এসব সভায় নৌকায় ভোট চেয়ে বক্তব্য রাখেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশির উদ্দিন খান, শাহা আলম চৌধুরী, জমির উদ্দিন পারভেজ, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, আলহাজ নুরুল আমিন, নাছির উদ্দিন, সারজু মোহাম্মদ নাছের, শওকত হোসেন, তছলিম উদ্দিন, ইসহাক ইসলাম, আহসান হাবিব চৌধুরী, তপন দে, হাসান মোহাম্মদ রাসেল, মোবারক আলী, জহির উদ্দিন, শাহাবুদ্দিন মেম্বার, কল্যাণ বড়–য়া, মাস্টার সাধন বড়–য়া, জিল্লুর রহমান মাসুদ, অনুপ চক্রবর্তী, মোহাম্মদ আসিফ, বাবুল ডাইভার, এনামুল হক, মোহাম্মদ রিপন, ওসমান গণি, আবদুল করিম, তছলিম উদ্দিন রিপন, ইকবাল হোসেন ইমন, মোহাম্মদ কায়সার প্রমূখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here