রাউজানের মাস্টারদা সূর্যসেনের ফাঁসি দিবস আজ

192
রাউজানের মাস্টারদা সূর্যসেন

মাস্টারদা সূর্যসেনের ফাঁসি দিবস আজ

‘একরাশ সূর্যকিরণ ছড়িয়ে সহাস্যে উঠেছিলে ফাঁসির মঞ্চে, দৃঢ় প্রত্যয়ী এক মানবাত্মা হয়েছিল মুক্ত, মিশেছিল পরমাত্মায় বীরের প্রত্যয় নিয়ে, কিন্তু রেখে গিয়েছিল এক অনাগত বিস্ফোরণের বারতা, যেমন এক মহাবিস্ফোরণে অনেক বিলিয়ন বছর আগে, সৃষ্টি হয়েছিল মহাবিশ্বের, তুমি পুনর্জন্মে বিশ্বাসী ছিলে কিনা জানা নেই, শুধু জেনেছি সব স্বপ্ন পূরণের আগেই ঠিক আমারি বয়সে, পরেছিলে জ্বান্তার করাল গ্রাসে, তুমি, প্রীতিলতা, কানাইলাল কলম-কালি ছেড়ে, হাতে নিয়েছেলে আগ্নেয়াস্ত্র, লাল বর্ণে লিখেছো বিদ্রোহের দিনলিপি।

আজ ১২ জানুয়ারি। ভারতীয় উপমহাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের কিংবদন্তি বিপ্লবী মাস্টারদা সূর্যসেনের ৮৬তম ফাঁসি দিবস। উল্লেখ্য, মাস্টারদা সূর্যসেন ১৮৯৪ সালের ২২ মার্চ রাউজানের নোয়াপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের কিংবদন্তিরূপে এ মহানায়ক ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। ১৯৩৪ সালে ১২ জানুয়ারি মধ্যরাতে চট্টগ্রাম কারাগারে সূর্য সেনের ফাঁসি কার্যকর করা হয়।

ফাঁসির মঞ্চে যাওয়ার পূর্বে সহযোদ্ধাদের উদ্দেশে সূর্য সেন লিখে গেলেন, ‘আমি তোমাদের জন্য রেখে গেলাম মাত্র একটি জিনিস, তা হলো আমার একটি সোনালি স্বপ্ন। স্বাধীনতার স্বপ্ন। প্রিয় কমরেডস, এগিয়ে চলো। সাফল্য আমাদের সুনিশ্চিত।’ তাঁর লাশ বস্তাবন্দী করে দূরসমুদ্রে ফেলে দেয় ব্রিটিশ সেনারা। বাংলার মাটিতে কোথাও যেন তাঁর চিহ্ন না থাকে। কিন্তু বিপ্লবী আত্মার যে মৃত্যু নেই। সূর্য সেন এ দেশের নির্যাতিত মানুষের হৃদয়ে তাই আজও অমর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here