আরব আমিরাতের জ্বলন্ত ভবন থেকে শিশুকে বাঁচিয়ে রাউজানের ফারুকে পেল সম্মান

903

অামির হামজা (রাউজান নিউজ) ♦

“আরব আমিরাতের জ্বলন্ত ভবন থেকে শিশুকে বাঁচিয়ে রাউজানের ফারুকে পেল সম্মান”

চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার ৮নং কদলপুর ইউনিয়নের কলিফা পাড়ার সন্তান মোঃ ফারুক পিতা মৃত্য নরুল হক। সেই বেশ কিছু বছর ওমানে ছিলেন, ওমান থেকে অাসার পর অাবারো জীবিকা ও জীবনের তাগিদে, সোনালী স্বপ্নের হাতছানিতে সাত সমুদ্দুর তের নদী পার হয়ে প্রবাসী জীবনে ছড়িয়ে পড়েন। অনেক সময় প্রবাসী জীবন হয় কষ্টহীন, কিন্তু রাউজানে মোঃ ফারুক অর্জন করেছেন সম্মান, শুধু রাউজান নয় অাজ সারাদেশে তিনি এখন একজন মহানায়ক হিসবে পরিচিতি রাউজান উপজেলার কদলপুর গ্রামের ফারুক।

তিনি সাম্প্রতিক আরব আমিরাত সেই এক বন্ধুর সাথে দেখা করতে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় দেখতে পান বাড়িতে আগুন তিনি তার জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ঝাপিয়ে পরে সেখান থেকে এক পাকিস্তানি তিন বছরের শিশু ছেলেকে ২য় তলার জ্বলন্ত বিল্ডিং থেকে বাঁচিয়ে বের করে নিয়ে আসেন। এই কাজের মাধ্যমে তিনি দেখিয়ে দিয়েছেন এবং প্রমাণ করেছেন রাউজানের মানুষ যে কোন দেশে বা বাংলাদেশের সন্তান হিসবে দেশের জন্য সুনাম বয়ে আনতে পারেন।
তিনি গত মঙ্গলবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের আজমান সিভিল ডিফেন্স থেকে বিশেষ সম্মাননা ও পেয়েছেন।

তিনি মুঠোফোনে জানান, দূর থেকে দেখছি একটি ভবনে জ্বলন্ত অাগুনের ছাড়াছড়ি বেশ কিছু ধুয়ার মধ্যে থেকে এক মহিলা তার ছোট সন্তানকে বাঁচানোর জন্য জানালা দিয়ে সাহায্যের জন্য চিৎকার করছে। সেখানে হাজার হাজার মানুষের ভিড় ছিল কিন্তু কেউ তাকে উদ্ধার করার চিন্তা করলো না। কিন্তু আমি আর থাকতে পারলাম না এগিয়ে গেলাম এবং ২তলায় থাকা ওই মহিলার দিকে তাকালাম মহিলাও আমার দিকে তাকাল তার পর বাচ্চাটিকে আমার হাতে ছেড়ে দিল।

তার ভাই নজরুল ইসলাম বলেন, অামার ভাই ফারুক একজন সহজ সরল মনের মানুষ, তিনি যে কোনো মানুষের বিপদে এগিয়ে যান, তার দুই সন্তান অাছেন, অার অামরা গর্বিত যে অামাদের ভাই অাজ এমন কাজ করে সারা বিশ্বে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here